শিশুসাহিত্যিক, আলোকচিত্রী পরিচয়ের আড়ালে শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি ও পাচার করতেন টিপু কিবরিয়া

রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে শিশুসাহিত্যিক, আলোকচিত্রী পরিচয়ের আড়ালে শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি ও পাচার করতেন টিপু কিবরিয়া। এ শিশুসাহিত্যিকের বাসায় অভিযান চালিয়ে তার ডিভাইসে মিলেছে ২৫ হাজার অশ্লীল ছবি ও এক হাজার পর্নোগ্রাফি ভিডিও।

র‌্যাব জানায়, আন্তর্জাতিক শিশু পর্নোগ্রাফি অপরাধচক্রের সঙ্গে যুক্ত এই শিশুসাহিত্যিক-আলোকচিত্রী। বিশ্বের অনেক দেশে তিনি শিশু পর্নোগ্রাফি অপরাধী হিসেবে তালিকাভুক্ত রয়েছেন তিনি।

শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি ও পাচারের অভিযোগে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে টিপু কিবরিয়া ও তার সহযোগী কামরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের একটি টিম এ দুজনকে গ্রেপ্তার করে।বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও সিটিটিসি প্রধান মো. আসাদুজ্জামান।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক শিশু পর্নোগ্রাফি চক্রের বাংলাদেশ অংশের মূলহোতা টিপু কিবরিয়া। তার বাসা থেকে জব্দ হওয়া ক্যামেরা, পিসি, ক্লাউড স্টোরেজ থেকে প্রায় ২৫ হাজারের মতো শিশু পর্নোগ্রাফির উদ্দেশে তোলা ছবি ও এক হাজারের মতো ভিডিও কনটেন্ট পাওয়া গেছে। শিশু পর্নোগ্রাফির জন্য ভুক্তভোগী শিশুদের সবাই ছিন্নমূল পথশিশু।

সিটিটিসির প্রধান বলেন, গুলিস্তান, রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানসহ ঢাকা শহরের ও দেশের বিভিন্ন স্থানের ছিন্নমূল, পথশিশুদের অর্থের প্রলোভন দেখিয়ে পর্নোগ্রাফিতে যুক্ত করতেন টিপু কিবরিয়া। শিশুদের বাসায় নিয়ে গিয়ে অশ্লীল ভিডিও বানিয়ে, গোপনাঙ্গের ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে আন্তর্জাতিক ক্লায়েন্টদের কাছে পাঠিয়ে দিতেন তিনি। শুধু তার বাসায় নয়; বিদেশি ক্লায়েন্টদের চাহিদা মাফিক বন-জঙ্গলে পথশিশুদের নিয়ে গিয়ে পর্নোগ্রাফির জন্য ভিডিও করতেন তিনি। তার বাসায় পর্নোগ্রাফির ভিডিও এডিটিং প্যানেলও রয়েছে। সেখানে তিনি এডিটিং করে ভিডিও কনটেন্ট বানিয়ে ক্লায়েন্টদের মেইলে পাঠাতেন। যা পরে বিভিন্ন পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইটে আপলোড করা হতো।তিনি বলেন, টিপু কিবরিয়া আগে ইমেইলের মাধ্যমে পর্নো ভিডিও-ছবি পাঠাতেন। পরে তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দেওয়ার জন্য মেগা ও টোটেনা নামে দুটি এনক্রিপটেড অ্যাপসের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গ্রাহকদের কাছে কনটেন্টগুলো পাঠাতেন। আমরা তার কাছ থেকে যে ডিভাইস উদ্ধার করেছি তাতে ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানিসহ আরও অনেক দেশের গ্রাহকদের তালিকা পাওয়া গেছে। যাদের কাছে এসব বিকৃত, অশ্লীল পর্নোগ্রাফির ভিডিও-ছবি পাঠিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা পেতেন টিপু।

মো. আসাদুজ্জামান বলেন, টিপু কিবরিয়ার কাছ থেকে উদ্ধার সব ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ফরেনসিক করে আমরা এখন পর্যন্ত ২৫ হাজার অশ্লীল ছবি ও ১ হাজার ভিডিও পেয়েছি।

ফরেনসিক বা ফিল্টারিংয়ের কাজ শেষ হলে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।
ঢাকা,বুধবার ২৪ এপ্রিল এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

» দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লি গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» ঈদের পঞ্চম দিন: পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত কুয়াকাটা সৈকত

» কুয়াকাটার সৈকতে দেখা মিলছে ইয়েলো-বেলিড সি স্নেকের

» ফরিদপুরে মধুখালীতে বাসের চাপায় ইজিবাইকের দুই যাত্রী নিহত

» কক্সবাজার শহরের বাদশাঘোনা এলাকায় পাহাড়ধসে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

» বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন, সবকিছুই এসেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

» কোয়ান্টিটি না গুণগত মানসম্মত চিকিৎসা চাই-স্বাস্থ্য মন্ত্রী

» হামিদপুর ইউনিয়নে নব বঁধু কে যৌতুকের জন্য শাশুড়ীর প্ররোচনায় নির্যাতন পাষন্ড স্বামী কারাগারে

» মাধবদীর আলগী তন্তুবায় সমবায় সমিতির ব্যাবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত মিজান সভাপতি হুমায়ন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল গভঃ রেজিঃ নং ১১৩

আজ শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিশুসাহিত্যিক, আলোকচিত্রী পরিচয়ের আড়ালে শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি ও পাচার করতেন টিপু কিবরিয়া




রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে শিশুসাহিত্যিক, আলোকচিত্রী পরিচয়ের আড়ালে শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি ও পাচার করতেন টিপু কিবরিয়া। এ শিশুসাহিত্যিকের বাসায় অভিযান চালিয়ে তার ডিভাইসে মিলেছে ২৫ হাজার অশ্লীল ছবি ও এক হাজার পর্নোগ্রাফি ভিডিও।

র‌্যাব জানায়, আন্তর্জাতিক শিশু পর্নোগ্রাফি অপরাধচক্রের সঙ্গে যুক্ত এই শিশুসাহিত্যিক-আলোকচিত্রী। বিশ্বের অনেক দেশে তিনি শিশু পর্নোগ্রাফি অপরাধী হিসেবে তালিকাভুক্ত রয়েছেন তিনি।

শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি ও পাচারের অভিযোগে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর খিলগাঁও এলাকা থেকে টিপু কিবরিয়া ও তার সহযোগী কামরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের একটি টিম এ দুজনকে গ্রেপ্তার করে।বুধবার (২৪ এপ্রিল) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও সিটিটিসি প্রধান মো. আসাদুজ্জামান।

তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক শিশু পর্নোগ্রাফি চক্রের বাংলাদেশ অংশের মূলহোতা টিপু কিবরিয়া। তার বাসা থেকে জব্দ হওয়া ক্যামেরা, পিসি, ক্লাউড স্টোরেজ থেকে প্রায় ২৫ হাজারের মতো শিশু পর্নোগ্রাফির উদ্দেশে তোলা ছবি ও এক হাজারের মতো ভিডিও কনটেন্ট পাওয়া গেছে। শিশু পর্নোগ্রাফির জন্য ভুক্তভোগী শিশুদের সবাই ছিন্নমূল পথশিশু।

সিটিটিসির প্রধান বলেন, গুলিস্তান, রমনা পার্ক, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানসহ ঢাকা শহরের ও দেশের বিভিন্ন স্থানের ছিন্নমূল, পথশিশুদের অর্থের প্রলোভন দেখিয়ে পর্নোগ্রাফিতে যুক্ত করতেন টিপু কিবরিয়া। শিশুদের বাসায় নিয়ে গিয়ে অশ্লীল ভিডিও বানিয়ে, গোপনাঙ্গের ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে আন্তর্জাতিক ক্লায়েন্টদের কাছে পাঠিয়ে দিতেন তিনি। শুধু তার বাসায় নয়; বিদেশি ক্লায়েন্টদের চাহিদা মাফিক বন-জঙ্গলে পথশিশুদের নিয়ে গিয়ে পর্নোগ্রাফির জন্য ভিডিও করতেন তিনি। তার বাসায় পর্নোগ্রাফির ভিডিও এডিটিং প্যানেলও রয়েছে। সেখানে তিনি এডিটিং করে ভিডিও কনটেন্ট বানিয়ে ক্লায়েন্টদের মেইলে পাঠাতেন। যা পরে বিভিন্ন পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইটে আপলোড করা হতো।তিনি বলেন, টিপু কিবরিয়া আগে ইমেইলের মাধ্যমে পর্নো ভিডিও-ছবি পাঠাতেন। পরে তিনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দেওয়ার জন্য মেগা ও টোটেনা নামে দুটি এনক্রিপটেড অ্যাপসের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক গ্রাহকদের কাছে কনটেন্টগুলো পাঠাতেন। আমরা তার কাছ থেকে যে ডিভাইস উদ্ধার করেছি তাতে ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানিসহ আরও অনেক দেশের গ্রাহকদের তালিকা পাওয়া গেছে। যাদের কাছে এসব বিকৃত, অশ্লীল পর্নোগ্রাফির ভিডিও-ছবি পাঠিয়ে মোটা অঙ্কের টাকা পেতেন টিপু।

মো. আসাদুজ্জামান বলেন, টিপু কিবরিয়ার কাছ থেকে উদ্ধার সব ইলেক্ট্রনিক্স ডিভাইস ফরেনসিক করে আমরা এখন পর্যন্ত ২৫ হাজার অশ্লীল ছবি ও ১ হাজার ভিডিও পেয়েছি।

ফরেনসিক বা ফিল্টারিংয়ের কাজ শেষ হলে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।
ঢাকা,বুধবার ২৪ এপ্রিল এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা প্রগতি স্বরণী বাড্ডা ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com