দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ঢাকায় প্রথম বারের মত অনুষ্টিত হচেছ ৯ দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক পিএইচএ গ্লোবাল সামিট-২০২৪’

দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ঢাকায় প্রথম বারের মত অনুষ্টিত হচেছ ৯ দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক পিএইচএ গ্লোবাল সামিট-২০২৪’ সম্মেলন।

৯ দিন ব্যাপী এই সম্মেলনে ২ হাজারের অধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, গবেষক, শিক্ষাবিদ ও মেডিক্যাল শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছেন। এ ধরনের আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুধু বাংলাদেশে নয়; দক্ষিণ এশিয়ায় এই প্রথম।

আজ এই সামিটের সপ্তম দিন এবং দুই দিনের মূল পর্বের সমাপনী দিন। মূল পর্বের সমাপনী পরবর্তী আরো দুই দিনে তিনটি সেশন অনুষ্ঠিত হবে।

আজ রোববার দুপুর আড়াইটায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্টিত হয়েছে প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ)র গ্লোবাল সামিট-২০২৪’ এর মূল পর্বের সমাপনী অনুষ্টান সম্পন্ন হয়েছে।

আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, সম্মেলনের মূল পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে ২৪ ও ২৫ ফেব্রুয়ারি। তার আগে ১৮, ১৯, ২০, ২২, ২৩ ফেব্রুয়ারি ৫ দিনে সম্মেলন পূর্ববর্তী কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকার ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি রাতে সামিটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। সম্মেলনের পরে ২৬ ও ২৭ ফেব্রুয়ারি আরো তিনটি সেশন অনুষ্ঠিত হবে।

স্পিকার হিসেবে রয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ৫০ জন চিকিৎসা বিজ্ঞানী এবং দেশের ১০০ জনেরও অধিক খ্যাতিমান চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ। ৯ দিনের সামিটে ৩০ টি কোর্স এবং বৈজ্ঞানিক সেশনের আয়োজন করা হয় ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সম্মেলন পূর্ব সেশনগুলো শুরু হয়। এদিন লন্ডন কোর রিভিউ ও পিএএলএস কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। ১৯ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দিনেও লন্ডন কোর রিভিউ’ এর উপর সেশন রাখা হয়। এছাড় ক্রিটিক্যাল ‘ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইন অবসটেট্রিকস’, ‘রেডিওলোজি’ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। ২০ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় দিনে লন্ডন কোর রিভিউ, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইন অবসটেট্রিকস, সিস্টেমেটিক রিভিউ অফ মেডিক্যাল লিটারেচার বিষয়ক কোর্সসমূহ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, ২২ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ দিনে `লন্ডন কোর রিভিউ’, `ওয়েট ল্যাব কোর্স’ এবং `সিমুলেশন, ডাইডেটিক এন্ড ইন্টারেক্টিভ ম্যাকানিক্যাল ভ্যান্টিলেশন’, `হেমোডায়ালাইসিস, প্যারিটনিয়াল ডায়ালাইসিস এন্ড কিডনি ট্রানসপ্লান্টেশন’ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৮ থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিনই ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে লন্ডন কোর্স রিভিউ কোর্সটি করা হয়। এটি আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত একটি কোর্স। যা যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলছে৷ বাংলাদেশে এই প্রথম কোর্সটি করানো হলো। কোর্সটি কার্ডিওথোরাসিক সার্জারির সাম্প্রতিক অগ্রগতি সম্পর্কে জ্ঞান, অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতার উন্নয়নের ডিজাইন করা। এটি সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক সুযোগ-সুবিধা দ্বারা পড়ানো হয়।

সূত্র আরও জানান, এছাড়া ২২ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ দিনে ঢাকা ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারের বাইরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ফরগাট এন্ড প্যালভিক মটিলিটি কোর্স, ঢাকা মেডিকেল কলেজের লেকচার গ্যালারিতে কমিউনিকেশন স্কিল কোর্স, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে নিউরো-রেডিওলজি ওয়ার্কসপ এবং স্কয়ার হাসপাতালের অডিটোরিয়ামে ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রিসেপটরশিপ ফর ইয়াং অনকোলজিস্টস কোর্স সম্পন্ন হয়। যেখানে তরুণ চিকিৎকদের হাতে কলমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

আয়োজন কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি পঞ্চম দিনে ‘মাস্টার ক্লাস ইন লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট’ কোর্স ছয়টি (এ , বি, সি, ডি, ই ও এফ) সেশনে ভাগ করে করানো হয়। কোর্সটি বিশ্বের বিখ্যাত লিভার বিশেষজ্ঞ প্রশিক্ষকদের সমন্বয়ে তৈরি করা হয়। ফলে অংশগ্রহণকারীগণ একটি বিশ্বমানের অভিজ্ঞতা পেয়েছেন। এমনকি তারা লিভার প্রতিস্থাপনের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা পেয়েছেন। লিভার ট্রান্সপ্লান্ট সার্জনদের দক্ষতা বৃদ্ধি, এমনকি হেমাটোলজিস্ট, হেপাটোবিলিয়ারি সার্জন এবং প্রশিক্ষণার্থীদের জন্য এটি ছিলো খুবই কার্যকর কোর্স।

এই সামিটের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য, সফলতা ও সীমাবদ্ধতা সম্পর্কিত বিষয়সমূহ তুলে ধরে
সংবাদ সম্মেলনে আলোকপাত করেন প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) এর চেয়ারপারসন ও ট্রাস্টি ডা. তাসবিরুল ইসলাম।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, পিএইচএ ট্রাস্টি ডা. নাসের খান, ডা. বাশার এম আতিকুজ্জামান, ডা. মো. জাকের উল্লাহ, ডা. চৌধুরী এইচ আহসান, ডা. শাকিল ফরিদ এবং ওমর শরীফসহ অন্যান্যরা উপস্হিত ছিলেন।

আয়োজক কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান, ২৩ ফেব্রুয়ারি রাতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন এই সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এ অনুষ্ঠানে প্ল্যানেটারি হেলথ অ্যাকাডেমিয়া ট্রাস্ট ও প্রথম আলো ট্রাস্টের শিক্ষা বৃত্তি দেওয়া অদম্য ৫ জন মেধাবী মেডিক্যাল শিক্ষার্থীদের সনদ প্রদান করা হয়। সনদপ্রাপ্তরা হলেন- রংপুর মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ বায়েজিদ সরকার, রংপুর মেডিকেল কলেজের সজিব মিয়া, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের পলাশ হোসেন, পাবনা মেডিকেল কলেজের তাহসিন আহমেদ আলভী, রংপুরের শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের মাহবুব আলম।

সূত্র জানান, উদ্বোধনী দিনে এক অনুষ্ঠানে ২০২৩ সালে শিক্ষা, চিকিৎসা শাস্ত্রে, স্বাস্থ্য সেবা তথা জনস্বার্থে বিশেষ অবদানের জন্য ৮ জন চিকিৎসককে অনারারি ফেলোশীপ দেওয়া হয়। অনারারি ফেলোশীপ পাওয়া আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিকিৎসকগণ হলেন- ডা. সারাহ ক্যাথরিন ক্লার্ক, অধ্যাপক টিমোথি গ্রাহাম, ডা. রানী ঠাকার, ডা. ফ্রাজ মীর, ডা. রোয়ান বার্নস্টেইন, অধ্যাপক ডেভিড ট্যাগার্ট, ডা. জগৎ নরুলা এবং ডা. সার্জিও লারাচ।

২৪ ফেব্রুয়ারি সামিটের ৬ষ্ঠ দিন অর্থাৎ মূল পর্বের প্রথম দিনে সকাল থেকে বিভিন্ন ভেন্যুতে ৯টি বৈজ্ঞানিক সেশন অনুষ্ঠিত হয়। ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে ‘নেফ্রোলজি’, ‘পিএইচএ পালমোনারি’, ‘নিউরো সায়েন্স’, ‘পিএইচএ গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি’ ,‘হেপাটোলজি’, ‘কার্ডিও, সিটি, ভাসকুলার সার্জারি’,‘ অবসটেট্রিক্স এন্ড গাইনোকোলজি’ বিষয়ের উপর সেশন পরিচালিত হয়। এ ছাড়া ঢাকা ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারের বাহিরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ‘কলোরেক্টাল সার্জারি হ্যান্ডস অন কোর্স’ অনুষ্ঠিত হয়। সব সেশন পরিচালনা করেন দেশি ও প্রবাসী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা ।

মূল পর্বের প্রথম দিনের বিশেষ আকর্ষণ ছিলো কী-নোট প্রেজেন্টেশন । ‘কনোনারী ডিজিস ইন উইমেন’ শিরোনামে কী-নোট প্রেজেন্টেশন দেন ওয়াল্ড হার্ট ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট ডা. জগৎ নরুলা। ‘ব্যাক টু দ্য ফিউচার’ শিরোনামে কী-নোট প্রেজেন্টেশন দেন লন্ডনের রয়েল কলেজ অফ ফিজিশিয়ানসের প্রেসিডেন্ট ডা. সারাহ ক্লার্ক এবং উইমেনস হেলথ-নাউ অ্যান্ড ইউ ফিউচার শিরোনামে কি-নোট প্রেজেন্টেশন দেন লন্ডনের সেন্ট জজ ইউনিভার্সিটির লেকচারার ডা. রানী ঠাকার ।

২৫ ফেব্রুয়ারি সপ্তম দিনে এবং সামিটের মুল পর্বের সমাপনী দিনে, ‘ক্রিটিক্যাল কেয়ার মেডিসিন’, ‘অ্যাডভান্সড এন্ডোক্রিনোলজি’ সেশন-১, ‘অ্যাডভান্সড এন্ডোক্রিনোলজি’ সেশন-২, ‘সাইকিয়াট্রি’ ‘জেনারেল সার্জারি ও অনকোলজি’ ‘ইন্টার্নল মেডিসিন’, ‘পিএইচএ ইউরোলজি’, ‘হেমাটোলজি’, ‘ক্যারিয়ার পাথ টু বাংলাদেশ’, ‘ক্যারিয়ার পাথ টু ইউকে’ এবং ‘ক্যারিয়ার পাথ টু ইউএসএ অ্যান্ড কানাডা’ কোর্সসমূহ অনুষ্ঠিত হয়। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত এসব কোর্সে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন চিকিৎসা বিজ্ঞানীগণ তাদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।

এই সম্মেলনে ইন্টারন্যাশনাল ডায়াবেটিস ফেডারেশন, ওয়ার্ল্ড হার্ট ফেডারেশন, আমেরিকান কলেজ অফ কার্ডিওলজি, রয়েল কলেজ অফ অবস্টেট্রিশিয়ানস অ্যান্ড গাইনোকোলজিস্ট, রয়েল কলেজ অফ ফিজিশিয়ানস লন্ডন, রয়েল কলেজ অফ ফিজিশিয়ানস এডিনবার্গ এর প্রেসিডেন্টবৃন্দ অংশ নেয়।

আজ রোববার ঢাকা ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে ‘পিএইচএ গ্লোবাল সামিট-২০২৪’ এর মূল পর্বের সমাপনী দিনে সংবাদ সম্লেলনে এসব তথ্য জানান প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) এর চেয়ারপারসন ও ট্রাস্টি ডা. তাসবিরুল ইসলাম। সম্মেলনে পিএইচএ ট্রাস্টি ডা. নাসের খান, ডা. বাশার এম আতিকুজ্জামান, ডা. মো. জাকের উল্লাহ, ডা. চৌধুরী এইচ আহসান, ডা. শাকিল ফরিদ ও ওমর শরিফ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আগামী কাল ২৬ ফ্রেব্রয়ারি সম্মেলনে ৮ম দিনে বারডেম জেনারেল হাসপাতালে বেসিক ব্রঙ্কোস্কোপি কোর্স এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্রেস্ট বায়োপসি ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হবে । এছাড়া ২৭ ফেব্রুয়ারি সামিটের শেষ দিনেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্রেস্ট বায়োপসি ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) এর চেয়ারপারসন ও ট্রাস্টি ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে পিএইচএ। রোগীরা যাতে দেশের বাইরে চিকিৎসার জন্য না যান, তা রোধ করার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। আমরা যদি আন্তর্জাতিক মানের সকল স্বাস্থ্য সেবা দেশেই দিতে পারি, তাহলে সেই সব রোগীদের আর দেশের বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। সেজন্য আমরা প্রশিক্ষণ দিয়ে চিকিৎসক, নার্স ও চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশ্বমানের করে গড়ে তুলতে চাই। এই সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে চিকিৎসকদের মধ্যে একটি টেকসই সেতুবন্ধন তৈরি হয়েছে বলে আমার বিশ্বাস।

ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, করোনাকালীন সময়ে ২০২০ সালে মাত্র ৫ জন চিকিৎসকের সমন্বয়ে আমাদের এই প্লাটফর্মের (পিএইচএ) যাত্রা শুরু হয়। মাত্র তিন থেকে সাড়ে তিন বছরে এই প্লাটফর্মে দুই হাজারের অধিক প্রবাসী চিকিৎসক যুক্ত হয়েছেন। এখন পিএইচএ বাংলাদেশি ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভুদ চিকিৎসক, গবেষক এবং শিক্ষাবিদদের সবচেয়ে বড় স্বেচ্ছাসেবী চিকিৎসা সংগঠন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ১০ থেকে ১৫ হাজার বাংলাদেশি চিকিৎসক সগৌরবে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। তাদেরও এই প্লাটফর্মে যুক্ত করার চেষ্টা করছে পিএইচএ।

ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য শিক্ষা আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার জন্য বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস) ও স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের সঙ্গে আমাদের কাজ চলছে। স্বাস্থ্যসেবার মান আরও উন্নয়নের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরসহ সরকারের সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কাজ করছি। আমরা আশা করছি, আমরা যে কাজটি করতে চাচ্ছি, তা সম্ভব করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমার চাই আমাদের সেবা পুরোপুরি প্রান্তিক পর্যায়ে পৌছে দিতে। সেজন্য আমরা দেশের মধ্যে প্রথম প্রোগ্রামটি সিলেট থেকে শুরু করি। সেখানে আমার অভূতপূর্ব সাড়া পাই, যা আমাদের অনেক বেশি অনুপ্রানিত করেছে। এরপর আমরা এই ৯দিনের সম্মেলন আয়োজনের সাহস করেছি।

বাংলাদেশে অনেক নামি দামি হাসপাতাল এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক থাকা সত্বেও প্রতি বছর কয়েক লাখ মানুষ (রোগী) উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ বিদেশে যায়। বাংলাদেশে আগামী দিনে প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) চিকিৎসা ক্ষেত্রে
কি ধরনের ভুমিকা রাখবে জানতে চাইলে
ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, দেশ থেকে রোগী কেন বিদেশে চলে যায়। সেটা সমস্যার মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা দেয়া জরুরি দরকার বলে আমি মনে করি।

বাংলাদেশ থেকে লাখ লাখ লোক প্রবাসে থাকেন, তাদেরকে এই চিকিৎসা সেবার আওতায় আনার কোন পরিকল্পনা আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা এনিয়েও কাজ করছি। আমাদের আমাদের ব্যাপক পরিকল্পনা ধরেও রয়েছে। তবে, চিকিৎসা ক্ষেত্রে ৫ বিলিয়ন ডলার প্রবাসে চলে যায়।
মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম বিশেষ সংবাদদাতাঃ
ঢাকা,রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» স্বর্ণের দাম এক হাজার ২৮৪ টাকা কমিয়ে নতুন দাম নির্ধারণ

» মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ৭ নম্বর বিপদ সংকেত

» উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় রেমাল।। কলাপাড়ায় প্রস্তুত রয়েছে আশ্রয় কেন্দ্র ও মুজিব কেল্লা

» উত্তর বাড্ডা জামতলা পানির পাম্প এলাকায় এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

» রাজধানীর বাড্ডা বটতলা এলাকায় নির্মাণাধীন ভবনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক রডমিস্ত্রীর মৃত্যু

» কুয়াকাটার সৈকতে আবারও ভেসে এসেছে মৃত ডলফিন

» বিএনপির পৃষ্ঠপোষকতায় কিছু সাম্প্রদায়িক অশুভ শক্তি তৎপর

» কালিহাতীতে পাইলিংবাহী একটি লোবেটের পেছনে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় চালক ও হেলপার নিহত

» ১০ তলা বঙ্গবাজার পাইকারি মার্কেটসহ চারটি উন্নয়ন প্রকল্পের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

» জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৫তম জন্মবার্ষিকী আজ

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল গভঃ রেজিঃ নং ১১৩

আজ রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ, ১২ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ঢাকায় প্রথম বারের মত অনুষ্টিত হচেছ ৯ দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক পিএইচএ গ্লোবাল সামিট-২০২৪’




দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ঢাকায় প্রথম বারের মত অনুষ্টিত হচেছ ৯ দিন ব্যাপী আন্তর্জাতিক পিএইচএ গ্লোবাল সামিট-২০২৪’ সম্মেলন।

৯ দিন ব্যাপী এই সম্মেলনে ২ হাজারের অধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক, গবেষক, শিক্ষাবিদ ও মেডিক্যাল শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছেন। এ ধরনের আন্তর্জাতিক সম্মেলন শুধু বাংলাদেশে নয়; দক্ষিণ এশিয়ায় এই প্রথম।

আজ এই সামিটের সপ্তম দিন এবং দুই দিনের মূল পর্বের সমাপনী দিন। মূল পর্বের সমাপনী পরবর্তী আরো দুই দিনে তিনটি সেশন অনুষ্ঠিত হবে।

আজ রোববার দুপুর আড়াইটায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সংলগ্ন ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্টিত হয়েছে প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ)র গ্লোবাল সামিট-২০২৪’ এর মূল পর্বের সমাপনী অনুষ্টান সম্পন্ন হয়েছে।

আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, সম্মেলনের মূল পর্ব অনুষ্ঠিত হয়েছে ২৪ ও ২৫ ফেব্রুয়ারি। তার আগে ১৮, ১৯, ২০, ২২, ২৩ ফেব্রুয়ারি ৫ দিনে সম্মেলন পূর্ববর্তী কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকার ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি রাতে সামিটের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন। সম্মেলনের পরে ২৬ ও ২৭ ফেব্রুয়ারি আরো তিনটি সেশন অনুষ্ঠিত হবে।

স্পিকার হিসেবে রয়েছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ৫০ জন চিকিৎসা বিজ্ঞানী এবং দেশের ১০০ জনেরও অধিক খ্যাতিমান চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ। ৯ দিনের সামিটে ৩০ টি কোর্স এবং বৈজ্ঞানিক সেশনের আয়োজন করা হয় ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সম্মেলন পূর্ব সেশনগুলো শুরু হয়। এদিন লন্ডন কোর রিভিউ ও পিএএলএস কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। ১৯ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দিনেও লন্ডন কোর রিভিউ’ এর উপর সেশন রাখা হয়। এছাড় ক্রিটিক্যাল ‘ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইন অবসটেট্রিকস’, ‘রেডিওলোজি’ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়। ২০ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় দিনে লন্ডন কোর রিভিউ, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইন অবসটেট্রিকস, সিস্টেমেটিক রিভিউ অফ মেডিক্যাল লিটারেচার বিষয়ক কোর্সসমূহ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আয়োজক কমিটি সূত্রে জানা গেছে, ২২ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ দিনে `লন্ডন কোর রিভিউ’, `ওয়েট ল্যাব কোর্স’ এবং `সিমুলেশন, ডাইডেটিক এন্ড ইন্টারেক্টিভ ম্যাকানিক্যাল ভ্যান্টিলেশন’, `হেমোডায়ালাইসিস, প্যারিটনিয়াল ডায়ালাইসিস এন্ড কিডনি ট্রানসপ্লান্টেশন’ কোর্স অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ১৮ থেকে ২২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিদিনই ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে লন্ডন কোর্স রিভিউ কোর্সটি করা হয়। এটি আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত একটি কোর্স। যা যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চলছে৷ বাংলাদেশে এই প্রথম কোর্সটি করানো হলো। কোর্সটি কার্ডিওথোরাসিক সার্জারির সাম্প্রতিক অগ্রগতি সম্পর্কে জ্ঞান, অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতার উন্নয়নের ডিজাইন করা। এটি সারা বিশ্বে আন্তর্জাতিক সুযোগ-সুবিধা দ্বারা পড়ানো হয়।

সূত্র আরও জানান, এছাড়া ২২ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ দিনে ঢাকা ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারের বাইরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি ফরগাট এন্ড প্যালভিক মটিলিটি কোর্স, ঢাকা মেডিকেল কলেজের লেকচার গ্যালারিতে কমিউনিকেশন স্কিল কোর্স, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে নিউরো-রেডিওলজি ওয়ার্কসপ এবং স্কয়ার হাসপাতালের অডিটোরিয়ামে ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রিসেপটরশিপ ফর ইয়াং অনকোলজিস্টস কোর্স সম্পন্ন হয়। যেখানে তরুণ চিকিৎকদের হাতে কলমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

আয়োজন কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান, গত ২৩ ফেব্রুয়ারি পঞ্চম দিনে ‘মাস্টার ক্লাস ইন লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট’ কোর্স ছয়টি (এ , বি, সি, ডি, ই ও এফ) সেশনে ভাগ করে করানো হয়। কোর্সটি বিশ্বের বিখ্যাত লিভার বিশেষজ্ঞ প্রশিক্ষকদের সমন্বয়ে তৈরি করা হয়। ফলে অংশগ্রহণকারীগণ একটি বিশ্বমানের অভিজ্ঞতা পেয়েছেন। এমনকি তারা লিভার প্রতিস্থাপনের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা পেয়েছেন। লিভার ট্রান্সপ্লান্ট সার্জনদের দক্ষতা বৃদ্ধি, এমনকি হেমাটোলজিস্ট, হেপাটোবিলিয়ারি সার্জন এবং প্রশিক্ষণার্থীদের জন্য এটি ছিলো খুবই কার্যকর কোর্স।

এই সামিটের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য, সফলতা ও সীমাবদ্ধতা সম্পর্কিত বিষয়সমূহ তুলে ধরে
সংবাদ সম্মেলনে আলোকপাত করেন প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) এর চেয়ারপারসন ও ট্রাস্টি ডা. তাসবিরুল ইসলাম।

এসময়ে উপস্থিত ছিলেন, পিএইচএ ট্রাস্টি ডা. নাসের খান, ডা. বাশার এম আতিকুজ্জামান, ডা. মো. জাকের উল্লাহ, ডা. চৌধুরী এইচ আহসান, ডা. শাকিল ফরিদ এবং ওমর শরীফসহ অন্যান্যরা উপস্হিত ছিলেন।

আয়োজক কমিটির নেতৃবৃন্দ জানান, ২৩ ফেব্রুয়ারি রাতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন এই সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। এ অনুষ্ঠানে প্ল্যানেটারি হেলথ অ্যাকাডেমিয়া ট্রাস্ট ও প্রথম আলো ট্রাস্টের শিক্ষা বৃত্তি দেওয়া অদম্য ৫ জন মেধাবী মেডিক্যাল শিক্ষার্থীদের সনদ প্রদান করা হয়। সনদপ্রাপ্তরা হলেন- রংপুর মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ বায়েজিদ সরকার, রংপুর মেডিকেল কলেজের সজিব মিয়া, স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের পলাশ হোসেন, পাবনা মেডিকেল কলেজের তাহসিন আহমেদ আলভী, রংপুরের শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের মাহবুব আলম।

সূত্র জানান, উদ্বোধনী দিনে এক অনুষ্ঠানে ২০২৩ সালে শিক্ষা, চিকিৎসা শাস্ত্রে, স্বাস্থ্য সেবা তথা জনস্বার্থে বিশেষ অবদানের জন্য ৮ জন চিকিৎসককে অনারারি ফেলোশীপ দেওয়া হয়। অনারারি ফেলোশীপ পাওয়া আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন চিকিৎসকগণ হলেন- ডা. সারাহ ক্যাথরিন ক্লার্ক, অধ্যাপক টিমোথি গ্রাহাম, ডা. রানী ঠাকার, ডা. ফ্রাজ মীর, ডা. রোয়ান বার্নস্টেইন, অধ্যাপক ডেভিড ট্যাগার্ট, ডা. জগৎ নরুলা এবং ডা. সার্জিও লারাচ।

২৪ ফেব্রুয়ারি সামিটের ৬ষ্ঠ দিন অর্থাৎ মূল পর্বের প্রথম দিনে সকাল থেকে বিভিন্ন ভেন্যুতে ৯টি বৈজ্ঞানিক সেশন অনুষ্ঠিত হয়। ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে ‘নেফ্রোলজি’, ‘পিএইচএ পালমোনারি’, ‘নিউরো সায়েন্স’, ‘পিএইচএ গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজি’ ,‘হেপাটোলজি’, ‘কার্ডিও, সিটি, ভাসকুলার সার্জারি’,‘ অবসটেট্রিক্স এন্ড গাইনোকোলজি’ বিষয়ের উপর সেশন পরিচালিত হয়। এ ছাড়া ঢাকা ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারের বাহিরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ‘কলোরেক্টাল সার্জারি হ্যান্ডস অন কোর্স’ অনুষ্ঠিত হয়। সব সেশন পরিচালনা করেন দেশি ও প্রবাসী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা ।

মূল পর্বের প্রথম দিনের বিশেষ আকর্ষণ ছিলো কী-নোট প্রেজেন্টেশন । ‘কনোনারী ডিজিস ইন উইমেন’ শিরোনামে কী-নোট প্রেজেন্টেশন দেন ওয়াল্ড হার্ট ফাউন্ডেশনের প্রেসিডেন্ট ডা. জগৎ নরুলা। ‘ব্যাক টু দ্য ফিউচার’ শিরোনামে কী-নোট প্রেজেন্টেশন দেন লন্ডনের রয়েল কলেজ অফ ফিজিশিয়ানসের প্রেসিডেন্ট ডা. সারাহ ক্লার্ক এবং উইমেনস হেলথ-নাউ অ্যান্ড ইউ ফিউচার শিরোনামে কি-নোট প্রেজেন্টেশন দেন লন্ডনের সেন্ট জজ ইউনিভার্সিটির লেকচারার ডা. রানী ঠাকার ।

২৫ ফেব্রুয়ারি সপ্তম দিনে এবং সামিটের মুল পর্বের সমাপনী দিনে, ‘ক্রিটিক্যাল কেয়ার মেডিসিন’, ‘অ্যাডভান্সড এন্ডোক্রিনোলজি’ সেশন-১, ‘অ্যাডভান্সড এন্ডোক্রিনোলজি’ সেশন-২, ‘সাইকিয়াট্রি’ ‘জেনারেল সার্জারি ও অনকোলজি’ ‘ইন্টার্নল মেডিসিন’, ‘পিএইচএ ইউরোলজি’, ‘হেমাটোলজি’, ‘ক্যারিয়ার পাথ টু বাংলাদেশ’, ‘ক্যারিয়ার পাথ টু ইউকে’ এবং ‘ক্যারিয়ার পাথ টু ইউএসএ অ্যান্ড কানাডা’ কোর্সসমূহ অনুষ্ঠিত হয়। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত এসব কোর্সে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন চিকিৎসা বিজ্ঞানীগণ তাদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।

এই সম্মেলনে ইন্টারন্যাশনাল ডায়াবেটিস ফেডারেশন, ওয়ার্ল্ড হার্ট ফেডারেশন, আমেরিকান কলেজ অফ কার্ডিওলজি, রয়েল কলেজ অফ অবস্টেট্রিশিয়ানস অ্যান্ড গাইনোকোলজিস্ট, রয়েল কলেজ অফ ফিজিশিয়ানস লন্ডন, রয়েল কলেজ অফ ফিজিশিয়ানস এডিনবার্গ এর প্রেসিডেন্টবৃন্দ অংশ নেয়।

আজ রোববার ঢাকা ইউনাইটেড কনভেনশন সেন্টারে ‘পিএইচএ গ্লোবাল সামিট-২০২৪’ এর মূল পর্বের সমাপনী দিনে সংবাদ সম্লেলনে এসব তথ্য জানান প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) এর চেয়ারপারসন ও ট্রাস্টি ডা. তাসবিরুল ইসলাম। সম্মেলনে পিএইচএ ট্রাস্টি ডা. নাসের খান, ডা. বাশার এম আতিকুজ্জামান, ডা. মো. জাকের উল্লাহ, ডা. চৌধুরী এইচ আহসান, ডা. শাকিল ফরিদ ও ওমর শরিফ উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আগামী কাল ২৬ ফ্রেব্রয়ারি সম্মেলনে ৮ম দিনে বারডেম জেনারেল হাসপাতালে বেসিক ব্রঙ্কোস্কোপি কোর্স এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্রেস্ট বায়োপসি ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হবে । এছাড়া ২৭ ফেব্রুয়ারি সামিটের শেষ দিনেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্রেস্ট বায়োপসি ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) এর চেয়ারপারসন ও ট্রাস্টি ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও স্বাস্থ্য সেবা আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করণের জন্য কাজ করে যাচ্ছে পিএইচএ। রোগীরা যাতে দেশের বাইরে চিকিৎসার জন্য না যান, তা রোধ করার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। আমরা যদি আন্তর্জাতিক মানের সকল স্বাস্থ্য সেবা দেশেই দিতে পারি, তাহলে সেই সব রোগীদের আর দেশের বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন হবে না। সেজন্য আমরা প্রশিক্ষণ দিয়ে চিকিৎসক, নার্স ও চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশ্বমানের করে গড়ে তুলতে চাই। এই সম্মেলনের মাধ্যমে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে চিকিৎসকদের মধ্যে একটি টেকসই সেতুবন্ধন তৈরি হয়েছে বলে আমার বিশ্বাস।

ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, করোনাকালীন সময়ে ২০২০ সালে মাত্র ৫ জন চিকিৎসকের সমন্বয়ে আমাদের এই প্লাটফর্মের (পিএইচএ) যাত্রা শুরু হয়। মাত্র তিন থেকে সাড়ে তিন বছরে এই প্লাটফর্মে দুই হাজারের অধিক প্রবাসী চিকিৎসক যুক্ত হয়েছেন। এখন পিএইচএ বাংলাদেশি ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভুদ চিকিৎসক, গবেষক এবং শিক্ষাবিদদের সবচেয়ে বড় স্বেচ্ছাসেবী চিকিৎসা সংগঠন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ১০ থেকে ১৫ হাজার বাংলাদেশি চিকিৎসক সগৌরবে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। তাদেরও এই প্লাটফর্মে যুক্ত করার চেষ্টা করছে পিএইচএ।

ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, ইতোমধ্যে স্বাস্থ্য শিক্ষা আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার জন্য বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস) ও স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের সঙ্গে আমাদের কাজ চলছে। স্বাস্থ্যসেবার মান আরও উন্নয়নের জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরসহ সরকারের সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কাজ করছি। আমরা আশা করছি, আমরা যে কাজটি করতে চাচ্ছি, তা সম্ভব করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমার চাই আমাদের সেবা পুরোপুরি প্রান্তিক পর্যায়ে পৌছে দিতে। সেজন্য আমরা দেশের মধ্যে প্রথম প্রোগ্রামটি সিলেট থেকে শুরু করি। সেখানে আমার অভূতপূর্ব সাড়া পাই, যা আমাদের অনেক বেশি অনুপ্রানিত করেছে। এরপর আমরা এই ৯দিনের সম্মেলন আয়োজনের সাহস করেছি।

বাংলাদেশে অনেক নামি দামি হাসপাতাল এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক থাকা সত্বেও প্রতি বছর কয়েক লাখ মানুষ (রোগী) উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ বিদেশে যায়। বাংলাদেশে আগামী দিনে প্ল্যানেটারি হেলথ একাডেমিয়া (পিএইচএ) চিকিৎসা ক্ষেত্রে
কি ধরনের ভুমিকা রাখবে জানতে চাইলে
ডা. তাসবিরুল ইসলাম বলেন, দেশ থেকে রোগী কেন বিদেশে চলে যায়। সেটা সমস্যার মাধ্যমে চিকিৎসাসেবা দেয়া জরুরি দরকার বলে আমি মনে করি।

বাংলাদেশ থেকে লাখ লাখ লোক প্রবাসে থাকেন, তাদেরকে এই চিকিৎসা সেবার আওতায় আনার কোন পরিকল্পনা আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা এনিয়েও কাজ করছি। আমাদের আমাদের ব্যাপক পরিকল্পনা ধরেও রয়েছে। তবে, চিকিৎসা ক্ষেত্রে ৫ বিলিয়ন ডলার প্রবাসে চলে যায়।
মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম বিশেষ সংবাদদাতাঃ
ঢাকা,রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা প্রগতি স্বরণী বাড্ডা ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com