নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় স্ত্রী, সন্তান ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় বিচ্ছেদ সইতে না পেরে স্ত্রী, সন্তান ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম করেছেন এক যুবক। শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভোরে উপজেলার অর্জুনতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত আমির হোসেন।আহতরা হলেন- একই এলাকার লোকমান হোসেনের স্ত্রী মাফিয়া বেগম (৫৮) তার মেয়ে বিবি ফাতেমা (৩৮) ও নাতনি রাবেয়া খাতুন (১৮)।ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আমির হোসেন পালিয়ে যান। তিনি জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলার অম্বরনগর ইউনিয়নের এতিম আলী জমাদার বাড়ির সফি উল্যার ছেলে।ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, ২৬ বছর আগে পারিবারিকভাবে সোনাইমুড়ীর উপজেলার আমির হোসেনর সঙ্গে সেনবাগ উপজেলার ইদিলপুর গ্রামের ফাতেমা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক বছর পর তাদের সংসারে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়। পরে তিন বছর আগে তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর ফাতেমা দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ির পাশে ইদিলপুর গ্রামে নতুন বাড়ি করে বসবাস শুরু করেন।

শুক্রবার ভোরে ফাতেমা ও তার মা নামাজ পড়তে উঠলে আমির হোসেন দুটি দা নিয়ে আকস্মিকভাবে তাদের ঘরে ঢুকে পড়েন। এরপর এলোপাতাড়ি সাবেক স্ত্রী ফাতেমা, শাশুড়ি মাফিয়া বেগম ও তার মেয়ে রাবেয়াকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যান আমির।

পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে মাফিয়া বেগম ও তার মেয়ে ফাতেমাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তাদের দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সেনবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন জানান, ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি আমাকে জানানো হয়েছে। দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
নোয়াখালী,শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারি এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লি গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» ঈদের পঞ্চম দিন: পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত কুয়াকাটা সৈকত

» কুয়াকাটার সৈকতে দেখা মিলছে ইয়েলো-বেলিড সি স্নেকের

» ফরিদপুরে মধুখালীতে বাসের চাপায় ইজিবাইকের দুই যাত্রী নিহত

» কক্সবাজার শহরের বাদশাঘোনা এলাকায় পাহাড়ধসে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

» বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন, সবকিছুই এসেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

» কোয়ান্টিটি না গুণগত মানসম্মত চিকিৎসা চাই-স্বাস্থ্য মন্ত্রী

» হামিদপুর ইউনিয়নে নব বঁধু কে যৌতুকের জন্য শাশুড়ীর প্ররোচনায় নির্যাতন পাষন্ড স্বামী কারাগারে

» মাধবদীর আলগী তন্তুবায় সমবায় সমিতির ব্যাবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত মিজান সভাপতি হুমায়ন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

» বন্যা পরিস্থিতির কারণে সিলেটে ৮ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল গভঃ রেজিঃ নং ১১৩

আজ শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় স্ত্রী, সন্তান ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম




নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় বিচ্ছেদ সইতে না পেরে স্ত্রী, সন্তান ও শাশুড়িকে কুপিয়ে জখম করেছেন এক যুবক। শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভোরে উপজেলার অর্জুনতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন অভিযুক্ত আমির হোসেন।আহতরা হলেন- একই এলাকার লোকমান হোসেনের স্ত্রী মাফিয়া বেগম (৫৮) তার মেয়ে বিবি ফাতেমা (৩৮) ও নাতনি রাবেয়া খাতুন (১৮)।ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আমির হোসেন পালিয়ে যান। তিনি জেলার সোনাইমুড়ী উপজেলার অম্বরনগর ইউনিয়নের এতিম আলী জমাদার বাড়ির সফি উল্যার ছেলে।ভুক্তভোগী পরিবার জানায়, ২৬ বছর আগে পারিবারিকভাবে সোনাইমুড়ীর উপজেলার আমির হোসেনর সঙ্গে সেনবাগ উপজেলার ইদিলপুর গ্রামের ফাতেমা বেগমের বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক বছর পর তাদের সংসারে দাম্পত্য কলহ দেখা দেয়। পরে তিন বছর আগে তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর ফাতেমা দুই ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ির পাশে ইদিলপুর গ্রামে নতুন বাড়ি করে বসবাস শুরু করেন।

শুক্রবার ভোরে ফাতেমা ও তার মা নামাজ পড়তে উঠলে আমির হোসেন দুটি দা নিয়ে আকস্মিকভাবে তাদের ঘরে ঢুকে পড়েন। এরপর এলোপাতাড়ি সাবেক স্ত্রী ফাতেমা, শাশুড়ি মাফিয়া বেগম ও তার মেয়ে রাবেয়াকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যান আমির।

পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে মাফিয়া বেগম ও তার মেয়ে ফাতেমাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তাদের দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

সেনবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন জানান, ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টি আমাকে জানানো হয়েছে। দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
নোয়াখালী,শুক্রবার ১৬ ফেব্রুয়ারি এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা প্রগতি স্বরণী বাড্ডা ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com