নতুন সাজে সমুদ্র সৈকত।। শুরু হচ্ছে দুইদিন ব্যাপী কুয়াকাটা ফেস্টিভ্যাল

পর্যটন শিল্পকে আরো বিকশিত করতে কুয়াকাটায় শুরু হচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা’। শুক্রবার থেকে দুইদিন ব্যাপী এ অনুষ্ঠানকে ঘিরে নতুন সাজে সাজানো হয়েছে সৈকত এলাকা। প্রস্তুত করা হয়েছে প্যান্ডেল। তৈরী করা হয়েছে ৬০ টি স্টল। এসব স্টলে কুয়াকাটার ইতিহাস ঐতিহ্য ও বিভিন্ন পন্যের পসরা ফুটিয়ে তোলা হবে। পর্যটকরা জানতে পারবে আদি ইতিহাস। এছাড়া এ উৎসব উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হবে রাখাইনদের কালচারাল অনুষ্ঠান, পুতুল নাচ, বাউল গান, ঘুড়ি ও ফানুস উৎসব।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মুজিব’স ক্যাম্পেইনের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের আইকনিক, ডেস্টিনেশন, সংস্কৃতি ঐতিহ্যকে বিশ্ববাসি ও বাংলাদেশের মানুষের কাছে তুলে ধরার জন্য বরিশাল বিভাগের সাগরকন্যা কুয়াকাটায় বিজয়ের মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা’। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এর আয়োজন করে। বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটাকে সামনে রেখে পর্যটন নির্ভর সকল ব্যবসায়ীদের মাঝে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ।
এদিকে হোটেল মোটেল ও রিসোর্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা ২০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়াও সকল পর্যটন নির্ভর ব্যবসায়ীরা এই ২ দিনের উৎসবে ব্যবসা না করে শুধু পর্যটকদের সেবা করার ঘোষণা করেছেন। এমন ছাড়ের ঘোষণায় আগত পর্যটকরা স্বস্তি পাবে এমনটাই জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়িরা।
এ উৎসবকে অনন্দমুখর করার লক্ষ্যে বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটি, জেলা, উপজেলা প্রশাসন স্টেক হোল্ডারদের নিয়ে দফায় দফায় মিটিং করেছেন বলে জানা গেছে।
কুয়াকাটা ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন টোয়াকের সভাপতি রুমান ইমতিয়াজ তুষার বলেন, ২ দিন ব্যাপি এই ফ্যাস্টিভ্যাল উৎসবে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এই উৎসবকে সামনে রেখে কুয়াকাটার ব্যবসায়ীরা অনেকটা উৎফুল্ল। ট্যুর অপারেটররা এই অনুষ্ঠান সফল করতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছি।
হোটেল মোটেল ওনার্স অ্যসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ বলেন, আমরা পর্যটকদের সুযোগ সুবিধার প্রধান্য দিয়ে থাকি। এ উৎসবকে ঘিরে হোটেল মোটেল ২০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
বিচ ম্যানেজমেন্টের সদস্য সচিব ও কলাপাড়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে অদম্য বাংলাদেশ। সোনার বাংলায় পর্যটনকে প্রসারিত করতে চলছে মুজিব’স বাংলাদেশ ক্যাম্পেইন। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের ট্যুরিজমকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিতে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সাগরকন্যা কুয়াকাটায় দুই দিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা’।
এ অনুষ্ঠানকে সফল করতে ইতোমধ্যে যাবতীয় প্রস্তিুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
পটুয়াখালী,বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ,কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে জাতীয় ঈদগাহসহ পুরো ঢাকায়

» ঈদের আগের দিনও রাজধানী ছাড়ছেন অনেক মানুষ

» সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ঈদুল আজহা উদযাপন

» স্পেনের কাছে ৩-০ গোলের হার দিয়ে এবারের মিশন শুরু করেছে ক্রোয়েশিয়া

» বর্তমানে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে চরম সংকটে রয়েছে-জিএম কাদের

» কুয়াকাটায় পর্যটক বরণে পুরোপুরি প্রস্তুতি নিয়েছে পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা

» ময়মনসিংহের ভালুকায় কাভার্ডভ্যান ও সিএনজির সংঘর্ষে দুইজন নিহত

» আজ পবিত্র হজ।ধ্বনিত হচ্ছে ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক’ ধ্বনিতে

» এইচ,এস,সি ৯১ ব্যাচের আইরিন ও ওবায়দুল কবিরের স্বরনে দোযা ওমমিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত।

» গাড়ির চাপ থাকলেও রাজধানীসহ কোথাও কোনো যানজট নেই

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল গভঃ রেজিঃ নং ১১৩

আজ রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ, ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নতুন সাজে সমুদ্র সৈকত।। শুরু হচ্ছে দুইদিন ব্যাপী কুয়াকাটা ফেস্টিভ্যাল




পর্যটন শিল্পকে আরো বিকশিত করতে কুয়াকাটায় শুরু হচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা’। শুক্রবার থেকে দুইদিন ব্যাপী এ অনুষ্ঠানকে ঘিরে নতুন সাজে সাজানো হয়েছে সৈকত এলাকা। প্রস্তুত করা হয়েছে প্যান্ডেল। তৈরী করা হয়েছে ৬০ টি স্টল। এসব স্টলে কুয়াকাটার ইতিহাস ঐতিহ্য ও বিভিন্ন পন্যের পসরা ফুটিয়ে তোলা হবে। পর্যটকরা জানতে পারবে আদি ইতিহাস। এছাড়া এ উৎসব উপলক্ষে অনুষ্ঠিত হবে রাখাইনদের কালচারাল অনুষ্ঠান, পুতুল নাচ, বাউল গান, ঘুড়ি ও ফানুস উৎসব।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মুজিব’স ক্যাম্পেইনের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের আইকনিক, ডেস্টিনেশন, সংস্কৃতি ঐতিহ্যকে বিশ্ববাসি ও বাংলাদেশের মানুষের কাছে তুলে ধরার জন্য বরিশাল বিভাগের সাগরকন্যা কুয়াকাটায় বিজয়ের মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা’। বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এর আয়োজন করে। বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটাকে সামনে রেখে পর্যটন নির্ভর সকল ব্যবসায়ীদের মাঝে বিরাজ করছে উৎসবমুখর পরিবেশ।
এদিকে হোটেল মোটেল ও রিসোর্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালকরা ২০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছেন। এছাড়াও সকল পর্যটন নির্ভর ব্যবসায়ীরা এই ২ দিনের উৎসবে ব্যবসা না করে শুধু পর্যটকদের সেবা করার ঘোষণা করেছেন। এমন ছাড়ের ঘোষণায় আগত পর্যটকরা স্বস্তি পাবে এমনটাই জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়িরা।
এ উৎসবকে অনন্দমুখর করার লক্ষ্যে বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটি, জেলা, উপজেলা প্রশাসন স্টেক হোল্ডারদের নিয়ে দফায় দফায় মিটিং করেছেন বলে জানা গেছে।
কুয়াকাটা ট্যুর অপারেটর অ্যাসোসিয়েশন টোয়াকের সভাপতি রুমান ইমতিয়াজ তুষার বলেন, ২ দিন ব্যাপি এই ফ্যাস্টিভ্যাল উৎসবে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এই উৎসবকে সামনে রেখে কুয়াকাটার ব্যবসায়ীরা অনেকটা উৎফুল্ল। ট্যুর অপারেটররা এই অনুষ্ঠান সফল করতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছি।
হোটেল মোটেল ওনার্স অ্যসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ বলেন, আমরা পর্যটকদের সুযোগ সুবিধার প্রধান্য দিয়ে থাকি। এ উৎসবকে ঘিরে হোটেল মোটেল ২০ শতাংশ থেকে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
বিচ ম্যানেজমেন্টের সদস্য সচিব ও কলাপাড়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে অদম্য বাংলাদেশ। সোনার বাংলায় পর্যটনকে প্রসারিত করতে চলছে মুজিব’স বাংলাদেশ ক্যাম্পেইন। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের ট্যুরিজমকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিতে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড, বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সাগরকন্যা কুয়াকাটায় দুই দিনব্যাপী ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কুয়াকাটা’।
এ অনুষ্ঠানকে সফল করতে ইতোমধ্যে যাবতীয় প্রস্তিুতি সম্পন্ন করা হয়েছে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
পটুয়াখালী,বৃহস্পতিবার ০৭ ডিসেম্বর এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা প্রগতি স্বরণী বাড্ডা ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com