যারা নিবার্চন বানচাল করতে চায় জনগণ তাদের ক্ষমা করবে না: এনামুল হক শামীম

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, সরকার পরিবর্তনের একমাত্র পথ নির্বাচন। সেই নির্বাচন যারা ঠেকাতে চায় তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। নির্বাচন ঠেকানো এবং দেশের বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করছে তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। এই রাষ্ট্রদ্রোহীদের চিহ্নিত করে বর্জন করতে হবে। তাদেরকে প্রতিরোধ-প্রতিহত করতে হবে। রাষ্ট্রদ্রোহীদের স্থান বাংলাদেশে হবে না। বাংলাদেশ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুুক্ত। তারা দেশের সংবিধান মানে না। গণতন্ত্র মানে। নির্বাচন মানে না। নির্বাচনে তারা জনগণের সমর্থন পাবে না। তাই তারা ষড়যন্ত্র করে যেনতেন পথে ক্ষমতায় আসতে চায়। তারা নির্বাচনে ছেড়ে এখন ষড়যন্ত্র করতে লিপ্ত।

আজ(বুধবার ) সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদে উপমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে ঢাকাস্থ শরীয়তপুরের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনী আমেজে বিএনপির সব কর্মসূচি হাওয়ায় মিলে গেছে। দেশের মানুষ যখন নির্বাচনমুখী তখনও তারা (বিএনপি) অনলাইনে বসে বসে উঁকি দিয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করছে। এতে কিছু সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ছাড়া আর কিছুই হচ্ছে না। তারা ফ্লাইওভারের ওপর থেকে বোমা নিক্ষেপ করছে। সারাদেশে যানবাহনে আগুন দিচ্ছে। একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি এমন কীভাবে হয়? এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। পৃথিবীর কোথাও এমন রাজনৈতিক কর্মসূচি নেই। তারা অযৌক্তিকভাবে হরতাল অবরোধ দিয়ে বাসে আগুন দিয়ে দেশের অর্থনীতির ক্ষতি করছে। তারা এদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করতে চায়। এসব ধ্বংসাত্মক কর্মসূচির কারণে দেশের মাঝারী ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। তারা এখনও নির্বাচন বানচালের দিবাস্বপ্নে বিভোর। তাদের এই দিবাস্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না। জনগণ বারবার তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি বলেন, ভয়-ভীতি প্রদর্শন, সন্ত্রাস, ষড়যন্ত্র এইগুলোই বিএনপির রাজনীতির অস্ত্র, রাজনৈতিক কৌশল। এর বাইরে তারা আর কোনো কৌশল জানে না। তারা আজও সেই ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে, যারা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে চায়, তারা জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে আছে, উন্নয়নের সাথে আছে। এই উন্নয়ন এবং দেশের শান্তি বিএনপির ভাল লাগে না। এটাকে বিনষ্ট করাই তাদের মূল উদ্দেশ্য। তাই দেশকে আরও এগিয়ে নিতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য উপমন্ত্রী বলেন, আপনাদের সুখে,দুঃখে সবসময় আমি আপনাদের পাশে ছিলাম। নিউমার্কেট ও বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে ছিলাম। ভবিষ্যতেও আপনাদের যেকোনো প্রয়োজনে পাশে থাকবো। আপনারাও আমার পাশে থাকবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নুর এ আলম আশিক, ব্যবসায়ীদের নেতাদের মধ্যে মো. আবুল বাশার হাওলাদার, বিল্লাল কোতোয়াল, আসাদ খান, দেলোয়ার কোতোয়াল, জাকির বেপারী, মোস্তফা আকন, মো. ওলি উল্লাহ, মো. শামীম হাওলাদার, নিজাম আকন, লোকমান আকন, মাসুদ চোকদার সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
ঢাকা,বুধবার ০৬ ডিসেম্বর এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

» দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে নয়াদিল্লি গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» ঈদের পঞ্চম দিন: পর্যটকদের পদচারণায় মুখরিত কুয়াকাটা সৈকত

» কুয়াকাটার সৈকতে দেখা মিলছে ইয়েলো-বেলিড সি স্নেকের

» ফরিদপুরে মধুখালীতে বাসের চাপায় ইজিবাইকের দুই যাত্রী নিহত

» কক্সবাজার শহরের বাদশাঘোনা এলাকায় পাহাড়ধসে ঘুমন্ত স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু

» বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন, সবকিছুই এসেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে : পলক

» কোয়ান্টিটি না গুণগত মানসম্মত চিকিৎসা চাই-স্বাস্থ্য মন্ত্রী

» হামিদপুর ইউনিয়নে নব বঁধু কে যৌতুকের জন্য শাশুড়ীর প্ররোচনায় নির্যাতন পাষন্ড স্বামী কারাগারে

» মাধবদীর আলগী তন্তুবায় সমবায় সমিতির ব্যাবস্থাপনা কমিটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত মিজান সভাপতি হুমায়ন সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের নিবন্ধনপ্রাপ্ত নিউজপোর্টাল গভঃ রেজিঃ নং ১১৩

আজ শনিবার, ২২ জুন ২০২৪ খ্রিষ্টাব্দ, ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যারা নিবার্চন বানচাল করতে চায় জনগণ তাদের ক্ষমা করবে না: এনামুল হক শামীম




পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি বলেছেন, সরকার পরিবর্তনের একমাত্র পথ নির্বাচন। সেই নির্বাচন যারা ঠেকাতে চায় তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। নির্বাচন ঠেকানো এবং দেশের বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করছে তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। এই রাষ্ট্রদ্রোহীদের চিহ্নিত করে বর্জন করতে হবে। তাদেরকে প্রতিরোধ-প্রতিহত করতে হবে। রাষ্ট্রদ্রোহীদের স্থান বাংলাদেশে হবে না। বাংলাদেশ নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি এই ষড়যন্ত্রের সঙ্গে যুুক্ত। তারা দেশের সংবিধান মানে না। গণতন্ত্র মানে। নির্বাচন মানে না। নির্বাচনে তারা জনগণের সমর্থন পাবে না। তাই তারা ষড়যন্ত্র করে যেনতেন পথে ক্ষমতায় আসতে চায়। তারা নির্বাচনে ছেড়ে এখন ষড়যন্ত্র করতে লিপ্ত।

আজ(বুধবার ) সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদে উপমন্ত্রীর নিজ কার্যালয়ে ঢাকাস্থ শরীয়তপুরের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উপমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনী আমেজে বিএনপির সব কর্মসূচি হাওয়ায় মিলে গেছে। দেশের মানুষ যখন নির্বাচনমুখী তখনও তারা (বিএনপি) অনলাইনে বসে বসে উঁকি দিয়ে কর্মসূচি ঘোষণা করছে। এতে কিছু সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ছাড়া আর কিছুই হচ্ছে না। তারা ফ্লাইওভারের ওপর থেকে বোমা নিক্ষেপ করছে। সারাদেশে যানবাহনে আগুন দিচ্ছে। একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি এমন কীভাবে হয়? এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। পৃথিবীর কোথাও এমন রাজনৈতিক কর্মসূচি নেই। তারা অযৌক্তিকভাবে হরতাল অবরোধ দিয়ে বাসে আগুন দিয়ে দেশের অর্থনীতির ক্ষতি করছে। তারা এদেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করতে চায়। এসব ধ্বংসাত্মক কর্মসূচির কারণে দেশের মাঝারী ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা ব্যাপক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। তারা এখনও নির্বাচন বানচালের দিবাস্বপ্নে বিভোর। তাদের এই দিবাস্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না। জনগণ বারবার তাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি বলেন, ভয়-ভীতি প্রদর্শন, সন্ত্রাস, ষড়যন্ত্র এইগুলোই বিএনপির রাজনীতির অস্ত্র, রাজনৈতিক কৌশল। এর বাইরে তারা আর কোনো কৌশল জানে না। তারা আজও সেই ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে, যারা অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে চায়, তারা জননেত্রী শেখ হাসিনার সাথে আছে, উন্নয়নের সাথে আছে। এই উন্নয়ন এবং দেশের শান্তি বিএনপির ভাল লাগে না। এটাকে বিনষ্ট করাই তাদের মূল উদ্দেশ্য। তাই দেশকে আরও এগিয়ে নিতে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে।

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য উপমন্ত্রী বলেন, আপনাদের সুখে,দুঃখে সবসময় আমি আপনাদের পাশে ছিলাম। নিউমার্কেট ও বঙ্গবাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে ছিলাম। ভবিষ্যতেও আপনাদের যেকোনো প্রয়োজনে পাশে থাকবো। আপনারাও আমার পাশে থাকবেন বলে আমি বিশ্বাস করি।

মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নুর এ আলম আশিক, ব্যবসায়ীদের নেতাদের মধ্যে মো. আবুল বাশার হাওলাদার, বিল্লাল কোতোয়াল, আসাদ খান, দেলোয়ার কোতোয়াল, জাকির বেপারী, মোস্তফা আকন, মো. ওলি উল্লাহ, মো. শামীম হাওলাদার, নিজাম আকন, লোকমান আকন, মাসুদ চোকদার সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
ঢাকা,বুধবার ০৬ ডিসেম্বর এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: খন্দকার সোহাগ হাছান

সহ বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান
সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা প্রগতি স্বরণী বাড্ডা ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com